কলাপাড়ায় মোটরসাইকেল চালককে কুপিয়ে জখম, মামলা দায়ের


ইমন আল আহসান,কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর কলাপাড়ার লালুয়া ইউনিয়নের রহিমউদ্দিন স্কুলের সামনে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শাওন প্যাদা নামের এক ভাড়াটে মোটর চালকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছেন নাঈম মাঝির নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী। এঘটনায় শাওনের ভাই মো: সফিকুল ইসলাম রাজিব বাদি হয়ে গত ৫ আগষ্ট মো: নাঈম মাঝিকে প্রধান আসামী  করে ৫ জনের বিরুদ্ধে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা করেছেন। 

মামলার অপর আসামীরা হলেন, মো: চান মিয়া মাঝি, মো: সোহাগ মাঝি, মো: আফাজ  উদ্দিন হাওলাদার, মো: শামীম মাঝি। মামলা সূত্রে জানাযায়, গত ৪ আগষ্ট শেষ বিকেলে উপজেলার লালুয়া ইউনিয়নের রহিম উদ্দিন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে হোন্ডা স্টান্ডে যাত্রীর জন্য মোটর সাইকেল চালক শাওন প্যাদা অপেক্ষা করছিল। এসময় নাঈম মাঝি স্টান্ডে এসে শাওনের কাছ থেকে জোর পূর্বক মোটর সাইকেলের চাবি ছিনিয়ে নেয়। শাওন প্রতিবাদ করলে পূর্ব বিরোধের জের ধরে পরিকল্পিত ভাবে পথ রোধ করে তাকে মারধর ও কুপিয়ে জখম করে। এসময় শাওনের পকেটে থাকা গরু কেনার জন্য ৫৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এবং মোটর সাইকেলটি ভাংচুর করে। 

এসময় শাওনের ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে আসামীরা  এই ঘটনায় মামলা করলে শাওন ও তার ভাই সফিকুলকে খুন করে লাশ গুম করবে বলে হুমকী  দিয়ে বীরদর্পে চলে যায়। সংবাদ পেয়ে শাওনের ভাই সফিকুল ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয়দের সহায়তায় শাওনকে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজে প্রেরন করেন। এব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কলাপাড়া থানার এসআই বিপ্লব মিস্ত্রী জানান, মামলার আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত আছে।

No comments

Powered by Blogger.