ময়মনসিংহে বাঁধ ভেঙে ১০ গ্রামের মানুষ পানিবন্দি।


জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বন্যার পানিতে ডুবে ৫ শিশুর মৃত্যু হয়েছে উত্তরের কয়েকটি নদীর পানি বাড়ায় সিরাজগঞ্জ কুড়িগ্রাম ও বগুড়ায় বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে অনাহারে-অর্ধাহারে দিন কাটাচ্ছেন পানিবন্দি মানুষে। অন্যদিকে শরীয়তপুর ও শেরপুরে বন্যার পানি নামতে শুরু করেছে। গত কয়েক দিনের সিরাজগঞ্জে পানি কমলেও নতুন করে যমুনা নদীর পানি বেড়েছে এখন ও পানিতে ভাসছে ৫ উপজেলার কয়েক লাখ মানুষ রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন বন্যার্তরা খাবার ও বিশুদ্ধ পানির তীব্র সংকট এর পাশাপাশি আক্রান্ত হচ্ছেন পানিবাহিত রোগে।

 কুড়িগ্রামে বন্যার ১৩ দিন পেরিয়ে গেলেও এখনো উন্নতি হয়নি পরিস্থিতির ব্রহ্মপুত্র ধরলা তিস্তা নদীর পানি বাড়ায় চরম মানবিক বিপর্যয়ের মুখে ৯ উপজেলার সাড়ে ৯ লাখ পানিবন্দি মানুষ খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সংকটে দিন কাটছে তাদের। বগুড়ায় বাঙালি নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে এতে জেলার সোনাতলা সারিয়াকান্দি ধুনটে নতুন করে পানি বেড়ে মানুষের দুর্ভোগ বেড়েছে। গবাদি পশু নিয়ে বিপাকে আছেন বন্যার্তরা।

 শেরপুরে কমতে শুরু করেছে পানি তবে এখন ও পানিতে তলিয়ে থাকায় গত সাতদিন ধরে জেলার সাথে জামালপুর-টাঙ্গাইল ও উত্তরবঙ্গের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। শরীয়তপুরে পানি কমলেও এখনো পানিবন্দি চরাঞ্চল ও নিম্ন অঞ্চলের মানুষ কিছু কিছু এলাকায় বাড়ি থেকে পানি নামতে শুরু করলেও পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন তারা স্পষ্ট হচ্ছে সড়কের ক্ষয়ক্ষতি ও। জামালপুরে পানি কমে গেল রাস্তাঘাট ব্রিজ-কালভার্ট বিধ্বস্ত থাকায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জেলার অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা অন্যায় জেলার ৪০ কিলোমিটার রাস্তা ও সাড়ে সাত হাজার বাড়ি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

No comments

Powered by Blogger.