আপনিও পুলিশ কনস্টেবল পদে এপ্লাই করতে পারবেন



9 হাজার 680 জন কনস্টেবল পদে পুলিশ নেবে
9 হাজার 680 জন কনস্টেবল নেবে বাংলাদেশ পুলিশ এই সংক্রান্ত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পুলিশের ওয়েবসাইটে দেওয়া হয়েছে এর মাঝে 6800 প্রয়োজন পুরুষ নেবে ও দুই হাজার 880 জন নারীকে পুলিশ কনস্টেবল পদে জরুরী নিয়োগ দেওয়া হবে।
শিক্ষাগত যোগ্যতা কি লাগবে।
এস এস সি বা সমমান পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন প্রার্থীদের ন্যূনতম জিপিএ থাকতে হবে এবং 2.5 অথবা সমমান লাগবে।
বাংলাদেশ পুলিশ কনস্টেবল যোগদান শারীরিক যোগ্যতা।
পুরুষদের জন্য উচ্চতা 5 ফুট 6 ইঞ্চি এবং বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় 31 ইঞ্চি ও স্ফীত অবস্থায় 33 ইঞ্চি হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পুরুষদের জন্য উচ্চতা 5 ফুট 4 ইঞ্চি এবং বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় 30 ইঞ্চি ও স্ফীত অবস্থায় একটি 20 ইঞ্চি হতে হবে। এছাড়া ক্ষুদ্র জাতিসত্তার কোথায় পুরুষ প্রার্থীদের জন্য উচ্চতা লাগবে করা হয়েছে 5 ফুট 4 ইঞ্চি এবং বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় 31 ইঞ্চি স্ফীত অবস্থায় 33 ইঞ্চি হতে হবে। এবং নারী পাত্রের জন্য সবকটাই উচ্চতার জন্য 5 ফুট 2 ইঞ্চি হতে হবে। এবং প্রার্থীদের ওজন উচ্চতা ও বয়স অনুযায়ী নির্ধারণ করা হবে।
পুলিশ কনস্টেবলপ্রার্থীদের আবেদন বয়স

বয়স আবেদনের জন্য প্রার্থীদের বয়স 11 জুন দুই হাজার 19 তারিখে 18 থেকে 20 বছর জন্ম তারিখ সর্বনিম্ন 2 জুন 2001 হইতে সর্বোচ্চ দুই জুন হাজার 999 হতে হবে।
তবে সে ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা এবং শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য এক এ জীবন 2019 তারিখ। বয়স 18 হতে 32 বছর পর্যন্ত জন্ম তারিখ সর্বনিম্ন দুই জন দুই হাজার এক হতে সর্বোচ্চ দুই জুন ফোন 1987 পর্যন্ত হতে হবে।

তবে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের সন্তানদের জন্য সে ক্ষেত্রে 1 জন 2019 তারিখে বয়স লাগবে 18 হতে 20 বছর জন্ম তারিখ সর্বনিম্ন 2 জন 2001 হতে সর্বোচ্চ দুইজন হাজার 999 পর্যন্ত হতে হবে। বয়স গণনার ক্ষেত্রে শুধু এসএসসি সমমানের সার্টিফিকেট উল্লেখিত জন্ম তারিখে চূড়ান্ত বলে গণ্য করা হবে। শুধু অবিবাহিত নারী ও পুরুষের আবেদন করতে পারবেন পুলিশ কনস্টেবল পদের জন্য
পুলিশ কনস্টেবল প্রার্থীদের
কোটা পদ্ধতি সরকার কর্তৃক জারীকৃত বিদ্যমান কোটা পদ্ধতি সাধারণ ও মুক্তিযোদ্ধা আনসার ও ভিডিপি এবং এতিম এবং ক্ষুদ্র জাতিসত্তা ইত্যাদি কোটা অনুসরণ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।
নির্বাচন পদ্ধতি

()
প্রতিটি জেলায় নিয়োগ যোগ্য প্রকৃত শূন্য পদে কোঠার অনুকূলে লিখিত মনস্তাত্ত্বিকমৌলিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধাক্রম অনুযায়ী প্রার্থীদের প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত করা হবে পুলিশ কনস্টেবল পদের জন্য

()
পুলিশ ভেরিফিকেশন সন্তোষজনক স্বাস্থ্য পরীক্ষায় যোগ্য বিবেচিত হলে প্রার্থীকে প্রশিক্ষণের জন্য প্রাথমিকভাবে মনোনীত করা হবে উল্লেখ পুলিশ ভেরিফিকেশন ফরম কোন তথ্য গোপন অথবা মিথ্যা তথ্য প্রদান করা হলে চূড়ান্ত প্রশিক্ষণের জন্য মনোনয়ন প্রদান করা হবে না।

পুলিশ কনস্টেবল এর জন্য বেতন ও ভাতা

প্রশিক্ষণ সাফল্যের জন্য সমাপ্তির পর 2015 সালের জাতীয় বেতন স্কেল এর মাধ্যমে 17 তম গ্রেড অনুযায়ী নিয়োগ প্রাপ্ত দের বেতন দেওয়া হবে প্রথম সর্বসাকুল্য 9 হাজার থেকে এক হাজার 800 টাকা পর্যন্ত এছাড়া বাথা ও অন্যান্য সুবিধা দেয়া হবে।

পুলিশ কনস্টেবল আবেদনের প্রক্রিয়া আগ্রহী প্রার্থীদের বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ থাকে সংশ্লিষ্ট জেলার পুলিশ লাইন মাঠে হাজির থাকতে হবে আবেদনের সময় বিজ্ঞাপনের উল্লেখিত কাগজপত্র সঙ্গে আনতে হবে। সৌজন্যে বাংলাদেশ পুলিশ। Bangladesh police official web https://www.police.gov.bd

No comments

Powered by Blogger.