শপথ প্রশ্নে তারেক রহমানের একক সিদ্ধান্ত গ্রহণ



শপথ প্রশ্নের তারেক রহমানের একক সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ বিএনপি নেতারা। সংসদে যাবার নির্দেশ অস্বস্তিকর বলে তাদের মত আকাশের রাজনীতিতে দল আরো পিছিয়ে পড়বে আর বিএনপি পন্থী বুদ্ধিজীবীরা বলছেন গঠনতন্ত্র ক্ষমতাবলে সিনিয়র নেতাদের উপেক্ষা করে সিদ্ধান্ত নিলে বিপর্যয়ের মুখে পড়বে বিএনপি। একাদশ সংসদ নির্বাচনে জয়ী বিএনপির ছয় সদস্যের সংসদের না যাওয়ার বিষয়ে প্রায় অনড় ছিল দলটি। তবে সব সময় শেষ হওয়ার ঘন্টাখানেক আগে পাল্টে যায় কয়েক দফা বৈঠকের সিদ্ধান্ত। একক সিদ্ধান্তের প্রতি নির্দেশনা দেন তারেক রহমান বিষয়টি জানতেন না দাবি করে কেন্দ্রীয় নেতারা বলছেন শপথ ইস্যুতে বিএনপির সঠিক ছিল না।

 এ যোগদান করা ঠিক হয়নি রাজনীতির খেলায় এতদিন ধরে আমরা যে কথা বলে এসেছি হঠাৎ করে সকালে এক কথা বিকালে কথা জানিয়েছে কেন তারা শপথ নিয়েছে একমাত্র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলতে পারবেন। বা কি আমরা হবো গ্রেজুয়েট আমরা কেউই জানিনা। এ সমস্ত কথা না বলে আমাদের একটি নীতি থাকা উচিত ছিল। বিএনপি ধীরে ধীরে পেছনে দিকে চলে যাবে যদি আপোষে মুলক রাজনীতির নীতি অনুসরণ করে।  

 তবে এ ধারাবাহিকতায় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ না নেওয়ায় দলের ভিতরে প্রশ্ন উঠেছে বলছেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এর সিদ্ধান্ত তারেক রহমান সর্বসম্মতভাবে নিলে এ সমস্যা দেখা দিত না বলেও মত তার। বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী বলছেন তারেকের এই একক সিদ্ধান্তেই প্রমাণ করে দলটিতে এখন গণতন্ত্র বিএনপির ঘুরে দাঁড়াতে তরুণ নেতৃত্ব ও যৌথ সিদ্ধান্ত দল পরিচালনায় গুরুত্ব দিচ্ছেন নীতিনির্ধারকেরা।

No comments

Powered by Blogger.